রাজধানীর ডেমরা ডগাইর মৌজা

আদালতের আদেশ অমান্য করে ভুয়া কাগজপত্র দিয়ে জমি দখল করে বিক্রির পাঁয়তারা

বৃহস্পতিবার, ০৪ মে ২০২৩ | 47 বার

আদালতের আদেশ অমান্য করে ভুয়া কাগজপত্র দিয়ে জমি দখল করে বিক্রির পাঁয়তারা
দখলকারীদের দখলীয় জমি

রাজধানীর ডেমরা ডগাইর মৌজায় আদালতের আদেশ অমান্য করে অবৈধভাবে দখল করে ভুক্তভোগী মোঃ সামসুদ্দিন ও দেলোয়ার হোসেন ও আলমাস এর ক্রয়কৃত সম্পত্তি অবৈধভাবে দখল করে বিক্রির পাঁয়তারা করছে একটি ভূমিদস্যু চক্র।

এ বিষয়ে ভুক্তভোগীরা গতবছর ১৫ এপ্রিল ২০২২ তারিখে ঢাকা ৫ আসনের সংসদ সদস্য, ওয়ারী বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার, ডেমরা থানার অফিসার ইনচার্জ ও সহকারি কমিশনার ভূমি ( এসি ল্যান্ড), ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন এর ৬৫ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর,৬৬ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর, ডেমরা পুলিশ ফাঁড়ি সাব-ইন্সপেক্টর বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। এছাড়াও ইতিপূর্বে ক্রয়কৃত সম্পত্তি ভূমিদস্যুদের হাত থেকে সম্পত্তি রক্ষা করতে ১৯৯৬ সালে কোর্টে মামলা করেন ভুক্তভোগী মোঃ সামসুদ্দীন, দেলোয়ার হোসেন ও আলমাস। মামলা নং ১১০/১৯৯৬ ‌সূত্রে জানাগেছে অবৈধ দখলদারদের ক্রয় সঠিক না থাকায় আদালত থেকে উচ্ছেদের আদেশ দেয়া হয়।

পরবর্তীতে ভুক্তভোগীদের পক্ষে একজন বিজ্ঞ ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে ৫০/৬০ জন পুলিশ এবং অন্যান্য সরকারি লোকজনের উপস্থিতিতে ডাক-ঢোল পিটিয়ে জমি থেকে অবৈধ দখলদারদের উচ্ছেদ করা হয়। তারপরেও ভূমিদস্যুদের পক্ষে ভাড়াটিয়া আনোয়ার হোসেন ও আবুল কালাম গং ভুয়া কাগজপত্র তৈরি করে জমি দখল করে অবৈধভাবে বিক্রির পাঁয়তারা করছে। এ ঘটনাটির বিষয়ে স্থানীয় ৬৫ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর কে লিখিত ভাবে জানানো হলে শনিবার ২৯ এপ্রিল অভিযুক্ত আনোয়ার হোসেন,বাবু( পান বাবু) কালাম কে বিবাদী করে একটি স্থানীয় সালিশের প্রথম দফায় নোটিশ করা হয়।

জানা গেছে, ডগাইর মৌজার সিএস ও এস.এ ১৪৩৯ আর.এস-২০০৬ সিটি জরিপ ৬৬২৬নং দাগের ৪৩ শতাংশ জমির মধ্যে ১৪ শতাংশ জমি সেমিপাকা টিনশেড সহ খরিদ করেন মোঃ সামসুদ্দিন, দেলোয়ার হোসেন ও আলমাস নামে তিন জন। ঐ জমির দক্ষিণ অংশে ৬৬৩৪ দাগে বিবাদীরা জমি খরিদ করেন। কিন্তু তাদের খরিদ সঠিক না থাকায় দুই পক্ষের মধ্যে আদালতে মামলাটি যায়। আদালতে নালিশী সম্পত্তি নিয়ে একটি মোকদ্দমা করলে ভুক্তভোগীরা রায় পান। অথচ আদালতের রায়কে বৃদ্ধাঙ্গুলি প্রদর্শন করে গায়ের জোরে ভূয়া কাগজপত্র তৈরি করে জমিটি আত্মসাৎ করার চেষ্টা করছে তারা। এই বিষয়ে এলাকার স্থানীয় কয়েকজন বাসিন্দা নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, ভূমি দস্যুরা স্থানীয়ভাবে প্রভাবশালী, সন্ত্রাসী, মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত তাদের ভয়ে সহজে কেউ মুখ খোলে না।

“অভিযোগকারী সামসুদ্দিন ও দেলোয়ার হোসেন জানান, দখলকারীদের দখলীয় জমির দাগ ঠিক নেই। তাদের দলিল একদাগে আর দখল করে রয়েছে আরেক দাগে। গায়ের জোরে সন্ত্রাসীদের মাধ্যমে প্রভাব বিস্তার করে জমিটি আত্মসাৎ করতে চায় ভূমিদস্যুরা।

Development by: webnewsdesign.com