ব্রেকিং

x

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জাতীয় গোল্ডকাপ-২৩ ফুটবল

জাতির পিতা ও বঙ্গমাতা জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট ২৩ এর উদ্বোধন

বুধবার, ০৭ জুন ২০২৩ | 20 বার

জাতির পিতা ও বঙ্গমাতা জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট ২৩ এর উদ্বোধন

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট, বালক (অনূর্ধ্ব-১৭) ও বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট, বালিকা (অনূর্ধ্ব-১৭) ২০২৩ এর উদ্বোধন

যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় কর্তৃক আয়োজিত ও ক্রীড়া পরিদপ্তরের সহযোগিতায় মুন্সিগঞ্জ জেলায় উদ্বোধন হলো দেশব্যাপী আয়োজনের “জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট, বালক (অনূর্ধ্ব-১৭) ও বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট, বালিকা (অনূর্ধ্ব-১৭) ২০২৩ এর আন্তঃইউনিয়ন ও উপজেলা পর্বের খেলা। বিকেলে মুন্সিগঞ্জ জেলা স্টেডিয়ামে দেশব্যাপী এই টুর্নামেন্টের উদ্বোধন করেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মোঃ জাহিদ আহসান রাসেল এমপি। আনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মাননীয় সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট মৃণাল কান্তি দাস, যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সম্মানিত সচিব ড. মহিউদ্দীন আহমেদ, ক্রীড়া পরিদপ্তর এর পরিচালক জনাব মুহম্মদ নূরে আলম সিদ্দিকী। অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন জনাব মোহাম্মদ মহফুজুর রহমান আল মামুন বিপিএম পিপিএম, পুলিশ সুপার, বীর মুক্তিযোদ্ধা মো: আনিছ উজ্জামান, চেয়ারম্যান, উপজেলা পরিষদ, মুন্সিগঞ্জ সদর, হাজী মোহাম্মদ ফয়সাল বিপ্লব, মেয়র মুন্সীগঞ্জ পৌরসভা। অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন কাজী নাহিদ রসুল, জেলা প্রশাসক,মুন্সিগঞ্জ।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বলেন, বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো ফুটবল খেলা নিয়ে বাংলাদেশেও রয়েছে বিপুল উৎসাহ-উদ্দীপনা। ফুটবল খেলা এ দেশে অনুষ্ঠিত হয় উৎসবে সাথে। আমরা যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দিক নির্দেশনায় ফুটবল খেলার উন্নয়নে তথা বিশ্বমানের ফুটবলার তৈরিতে কাজ করে চলেছি। বিভিন্ন পর্যায়ে উন্নত প্রশিক্ষণ এবং প্রতিযোগিতার আয়োজন করছি। দেশে বিভিন্ন পর্যায়ে ফুটবল টুর্নামেন্টের সংখ্যা ক্রমান্বয়ে বৃদ্ধি করা হচ্ছে।

বর্তমান সরকার ক্রীড়া বান্ধব সরকার। দেশের সর্বত্র ক্রীড়া অবকাঠামো তৈরিতে বদ্ধ পরিকর। আপনারা নিশ্চিয় জানেন যে, এ পর্যন্ত সারা দেশে ১২৫ টি উপজেলায় শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম নির্মাণ করা হয়েছে এবং বাকী উপজেলাগুলোতেও শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম নির্মাণের কাজ চলমান আছে।

দেশের ক্রীড়া ক্ষেত্র তথা ফুটবল খেলায় কিশোর–কিশোরীদের প্রতিভা বিকাশে “জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট, বালক (অনূর্ধ্ব-১৭)” ও “ বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট, বালিকা (অনূর্ধ্ব-১৭)-২০২৩” আয়োজিত হচ্ছে। এটি বাংলাদেশের ফুটবল ইতিহাসে আরেকটি নতুন সংযোজন।

বিপুল দর্শক সমারোহ ও আনন্দঘন পরিবেশে সকল উপজেলা, জেলা ও বিভাগীয় পর্যায়ে কয়েক লক্ষ তরুণ ফুটবলার এ প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে। তৃণমূল পর্যায় হতে উঠে আসা এই সকল ফুটবল খেলোয়াড়দের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণ, উৎসাহ-উদ্দীপনা এবং বিপুল আগ্রহ আমাকে সত্যিই অভিভূত করেছে।

তিনি আরে জানান যে, এই টুর্নামেন্ট থেকে প্রতিভাবান ফুটবলারদেরকে দেশের ভিতরে এবং বিদেশে উন্নত প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হয়। বিগত টুর্নামেন্ট হতে ৪ জন প্রতিভাবান ফুটবলারকে ব্রাজিলের গামা ক্লাবে উচ্চতর প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে। এ বছরেও বালক-বালিকা বাছাই করে সেরা প্রতিভাবান তরুণ ফুটবলারদের ব্রাজিল অথবা ইউরোপসহ বিভিন্ন দেশ হতে উচ্চতর প্রশিক্ষণ প্রদানের জন্য উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

 

 

যুবরাই হলো দেশের শক্তি। আর এই যুবদের বিভিন্ন সামাজিক অপরাধ থেকে দূরে রাখতে এবং সুস্থ্য ক্রীড়াচর্চা প্রসারে এ ধরনের টুর্নামেন্টের অবদান অনস্বীকার্য। প্রতিটি জেলার টুর্নামেন্ট হয়ে উঠুক মাদক ও জঙ্গী বিরোধী শ্লোগানে মুখরিত।

উদ্বোধনী ম্যাচে টঙ্গীবাড়ী উপজেলাকে ৪-০ গোলে হারিয়েছে মুন্সিগঞ্জ পৌরসভা বালিকা দল।

Development by: webnewsdesign.com