তদন্তের স্বার্থে প্রয়োজনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে সাকিব-হিরো আলমকে-ডিবি প্রধান

বৃহস্পতিবার, ১৬ মার্চ ২০২৩ | 33 বার

তদন্তের স্বার্থে প্রয়োজনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে সাকিব-হিরো আলমকে-ডিবি প্রধান

দুবাইয়ে সোনার দোকানের মালিক আরাভ খান পুলিশ খুনের আসামি। বিষয়টি জানানো হয়েছিল বাংলাদেশ জাতীয় দলের ক্রিকেটার সাকিব আল হাসানকে। তারপরও আরাভ খানের সোনার দোকান উদ্বোধনে সাকিবের দুবাই যাওয়াকে দুঃখজনক বলে উল্লেখ করেছেন ডিবিপ্রধান অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ। তিনি এও জানিয়েছেন, তদন্তের স্বার্থে দেশে ফিরলে সাকিবসহ যেসব বাংলাদেশি সেলেব্রিটি ওই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

আজ বৃহস্পতিবার (১৬ মার্চ) দুপুরে নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের ডিবির প্রধান এসব কথা বলেন।

বুধবার (১৫ মার্চ) দুবাইয়ে স্থানীয় সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে আরাভ জুয়েলার্সের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান। তবে উদ্বোধনী মঞ্চে না উঠেই ১০ মিনিটের মধ্যে চলে যান তিনি। একই অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে মঞ্চ মাতান দেশের আলোচিত ইউটিউবার আশরাফুল আলম ওরফে হিরো আলম। এছাড়া ওই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন চিত্রনায়িকা দীঘিসহ বাংলাদেশের আরও অনেক তারকা।

ডিবি প্রধান বলেন, আমাদের পুলিশের একজন মেধাবী কর্মকর্তা ছিলেন পরিদর্শক মামুন। তাকে শুধু হত্যাই করেনি, মরদেহ যেন না পাওয়া যায় তাই কালীগঞ্জের জঙ্গলে ফেলে দিয়েছিল। এ ঘটনার পর মামলা হয়। ডিবি তদন্ত করেছে। আসামি আরাভ খান ওরফে রবিউল ইসলাম পালিয়ে গেলেও নকল একজন আসামি জেলখানায় দেন। পরবর্তী সময়ে ডিবির তদন্তে নকল আসামির ঘটনা সামনে আসে। এরমধ্যে মূল আসামি দুবাইয়ে স্বর্ণের দোকানের মালিক রবিউল ইসলাম ওরফে আরাভ খান ভারতে পালিয়ে যান। সেখান থেকে তিনি ভারতীয় পাসপোর্টে দুবাই যান।

তিনি আরও বলেন, আরাভ খান ওরফে রবিউল ইসলাম একজন খুনি। একজন মেধাবী পুলিশ কর্মকর্তাকে খুন করেছেন। মিডিয়াতে ও অনেকের বলার পরও সাকিবসহ অন্য তারকারা খুনের মামলার আসামির ডাকে দুবাইয়ে গিয়েছেন। তার স্বর্ণের দোকান উদ্বোধনে যোগ দিয়েছেন।

ঊর্ধ্বতনদের সঙ্গে আলাপ করে ইন্টারপোলের সহায়তায় রবিউল ইসলাম ওরফে আরাভ খানকে দেশে ফিরিয়ে এনে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের কথা জানিয়ে ডিবি প্রধান আরও বলেন, আসামির বিরুদ্ধে এখন পর্যন্ত ১২টি ওয়ারেন্ট রয়েছে। মামলা রয়েছে, চার্জশিট রয়েছে তার বিরুদ্ধে। এছাড়া সাকিবদের অবগত করার পরও  মর্ডার মামলার আসামি আরাফ খানের স্বর্ণের দোকান উদ্বোধনে কেন গেলো, তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজন হলে তারা দেশে ফেরার পর তাদের ডেকে এ বি জানতে চাওয়া হবে।

Development by: webnewsdesign.com