বিমানে তর্কাতর্কির পর সহযাত্রীর শরীরে ভারতীয় যাত্রীর মূত্রত্যাগ

মঙ্গলবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৩ | 20 বার

বিমানে তর্কাতর্কির পর সহযাত্রীর শরীরে ভারতীয় যাত্রীর মূত্রত্যাগ
বিমানে তর্কাতর্কির পর সহযাত্রীর শরীরে ভারতীয় যাত্রীর মূত্রত্যাগ

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক থেকে ভারতের রাজধানী দিল্লিগামী আমেরিকান এয়ারলাইন্সের বিমানে তর্কাতর্কির পর এক সহযাত্রীর শরীরে প্রস্রাব করে দিয়েছেন ভারতীয় এক যাত্রী। বিরতিহীন এই ফ্লাইট রোববার রাতে দিল্লিতে অবতরণের পর অভিযুক্ত যাত্রীকে আটক করেছে ভারতের নিরাপত্তা বাহিনী।

সোমবার দেশটির সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়ার এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, অভিযুক্ত যাত্রী মদ্যপ অবস্থায় পাশের সহযাত্রীর সঙ্গে তর্ক-বিতর্কে জড়িয়ে পড়েছিলেন। পরে তার শরীরে প্রস্রাব করে দেন তিনি।

আমেরিকান এয়ারলাইন্সের বোয়িং ৭৭৭ ওই ফ্লাইটটি দিল্লির ইন্দিরা গান্ধী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে (আইজিআইএ) অবতরণ করে রোববার রাত ৯টা ১১ মিনিটে। পরে অভিযুক্ত যাত্রীকে ভারতের সেন্ট্রাল ইন্ডাস্ট্রিয়াল সিকিউরিটি ফোর্সের (সিআইএসএফ) সদস্যদের হাতে তুলে দেওয়া হয়।

ভারতের বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের জ্যেষ্ঠ এক কর্মকর্তা বলেছেন, একজন মদ্যপ যাত্রী তার পাশের সহযাত্রীর শরীরে মূত্রত্যাগ করে দিয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। আমেরিকান এয়ারলাইন্স বিমানের অন্যান্য যাত্রীদের বক্তব্য রেকর্ড করেছে এবং ওই যাত্রীকে আইন প্রয়োগকারী সংস্থার কাছে হস্তান্তর করেছে। এই ঘটনায় একটি এফআইআর দায়ের করা হয়েছে।

পরে অভিযুক্তকে দিল্লি পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছে সিআইএসএফ। তবে দিল্লি পুলিশ বলেছে, তারা এখনও এই বিষয়ে কোনও অভিযোগ পায়নি।

এক বিবৃতিতে আমেরিকান এয়ারলাইন্স বলেছে, আমেরিকান এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট ২৯২ (জেএফকে-আইজিআইএ) দিল্লিতে পৌঁছানোর পর স্থানীয় আইন প্রয়োগকারী সংস্থার সদস্যরা এক যাত্রীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছে। আমরা ক্রু সদস্যদের প্রতি কৃতজ্ঞ; যারা ক্রমাগতভাবে আমাদের যাত্রীদের নিরাপত্তা ও সেবার জন্য নিবেদিত এবং অত্যন্ত পেশাদারিত্বের সাথে পরিস্থিতি মোকাবিলা করেছেন।

গত কয়েক মাসে মদ্যপ ব্যক্তিদের সহযাত্রীর শরীরে প্রস্রাব করে দেওয়ার কয়েকটি ঘটনা ঘটতে দেখা গেছে। গত মাসে আমেরিকান এয়ারলাইন্সের নিউইয়র্ক-দিল্লিগামী ফ্লাইটের বিজনেস ক্লাসের এক যাত্রীর শরীরে মদ্যপ অবস্থায় প্রস্রাব করে দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া যায় যুক্তরাষ্ট্রের একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করা ২০ বছর বয়সী এক ছাত্রের বিরুদ্ধে। ওই ছাত্র দিল্লির বাসিন্দা।

Development by: webnewsdesign.com