বিশ্বব্যাংকের সহায়তায় গৃহীত আর্ন প্রকল্পের মাধ্যমে ৯ লক্ষাধিক যুবকের শিক্ষা, প্রশিক্ষন ও কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টিঃ যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী

বৃহস্পতিবার, ২৪ আগস্ট ২০২৩ | 12 বার

বিশ্বব্যাংকের  সহায়তায়  গৃহীত আর্ন প্রকল্পের মাধ্যমে  ৯ লক্ষাধিক যুবকের শিক্ষা, প্রশিক্ষন ও কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টিঃ  যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী
বিশ্বব্যাংকের সহায়তায় গৃহীত আর্ন প্রকল্পের মাধ্যমে ৯ লক্ষাধিক যুবকের শিক্ষা, প্রশিক্ষন ও কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টিঃ যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী

যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে বিশ্বব্যাংকের আর্থিক সহায়তায় গৃহীত আর্ন প্রকল্পের মাধ্যমে ৯ লক্ষাধিক যুব/ যুব নারীকে শিক্ষা কার্যক্রম , প্রশিক্ষন প্রদান ও কর্মসংস্থানের আওতায় আনা হবে বলে জানিয়েছেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জনাব মোঃ জাহিদ আহসান রাসেল এমপি।

তিনি বলেন, গত জুনে একনেক সভায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক (Economic Acceleration and Resilience for NEET) EARN প্রকল্পটি অনুমোদন করা হয়েছে। প্রকল্পটি মোট ৩,৩৪৮.০০ কোটি (তিন হাজার তিনশত আটচল্লিশ কোটি) টাকা ব্যয়ে বিশ্বব্যাংকের আর্থিক সহায়তায় ৬৪ জেলার ২৫০ টি উপজেলায় বাস্তবায়িত হবে। এই প্রকল্পের মাধ্যমে দেশের যুব সমাজের প্রায় নয় লক্ষাধিক যুব/যুব নারী উপকারভোগীর আওতায় আসবে। এর পাশাপাশি প্রায় বিশ লক্ষাধিক যুব/যুব নারী প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে এই প্রকল্পের মাধ্যমে উপকৃত হবে বলে আমরা আশা করছি।

এছাড়া,২০৪১ সালের মধ্যে স্মার্ট বাংলাদেশের প্রত্যাশা পূরণে এই প্রকল্প ভূমিকা পালন করবে। স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মানের লক্ষ্যে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় কর্তৃক প্রস্তাবিত EARN প্রকল্পটি একনেক সভায় অনুমোদন করায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রতি অশেষ ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করছি।

তিনি আজ বিকালে রাজধানীর একটি কনভেনশন সেন্টারে ” নিজের বলার মতো একটা গল্প ফাউন্ডেশন” কর্তৃক আয়োজিত ৬৪ জেলার বিখ্যাত খাবার ও পণ্য মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন,যুবদের দক্ষতা বৃদ্ধিকল্পে ৬৪টি জেলা প্রশিক্ষণ কেন্দ্র, ৬৪টি আবাসিক যুব প্রশিক্ষণ কেন্দ্র এবং ৪৯৬টি উপজেলা কার্যালয়ের মাধ্যমে ৪১টি প্রাতিষ্ঠানিক ও ৪২টি অপ্রাতিষ্ঠানিক ট্রেড সর্বমোট ৮৩ টি ট্রেডে নিয়মিত যুবদের দক্ষতাবৃদ্ধিমূলক প্রশিক্ষণ কার্যক্রম পরিচালনা করছে।
যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর প্রতিবছর ৩.০ (তিন) লাখের অধিক সংখ্যক যুবদের বিভিন্ন ট্রেডে প্রশিক্ষণ দিয়ে তাদেরকে কর্মসংস্থানের উপযোগী করে গড়ে তুলছে এবং ঋণ প্রদানের মাধ্যমে আত্ম-কর্মসংস্থান ও উদ্যোগী হিসেবে প্রতিষ্ঠার জন্য সহযোগিতা প্রদান করছে।

যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের জন্মলগ্ন থেকে এ পর্যন্ত প্রায় ৬৯ লক্ষের অধিক জনকে প্রশিক্ষন প্রদান করা হয়েছে এবং তাদের মধ্যে প্রায় ২৪ লক্ষ জন আত্মকর্মী হিসেবে প্রতিষ্ঠা পেয়েছে। উল্লেখ্য, বর্তমান সরকারের তিন মেয়াদে প্রায় ৩৯ লক্ষ জনকে দক্ষতা উন্নয়নমূলক প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে। যার মধ্যে প্রায় ৯ লক্ষ যুবক আত্মকর্মী হয়েছে।

প্রতি বছর গড়ে ৪০ হাজার প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত যুব’র মাঝে আত্মকর্মসংস্থানমূলক প্রকল্প গ্রহণের জন্য ১৪০ কোটি টাকা ঋণ সহায়তা প্রদান করা হচ্ছে। চলতি বছরের জুন/২০২৩ পর্যন্ত প্রায় ১০ লক্ষ ৫৯ হাজার ৩৪৬ জন যুবককে ২ হাজার ৩৯২ কোটি টাকার যুব ঋণ দিয়েছে যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর। বর্তমান সরকারের গত তিন মেয়াদে ৫ লক্ষ ৩০ হাজার ৭৮৭ জন প্রশিক্ষিত যুবদের মাঝে ১ হাজার ৫ শত ৪৭ কোটি ৩০ লক্ষ টাকা ঋণ সহায়তা প্রদান করা হয়েছে। যুবদের উদ্যোক্তা হিসেবে গড়ে তুলতে কর্মসংস্থান ব্যাংক ও NRBC ব্যাংক এর সাথে MoU করা হয়েছে। এখান থেকে আমাদের প্রশিক্ষিত যুবরা ৫ থেকে ১০ লক্ষ টাকা startup capital হিসেবে ঋণ সুবিধা পাচ্ছে।

যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর ২০২১ থেকে ২০২৩ সময়কালে ৪০,০০ (চল্লিশ হাজার) সুদক্ষ গাড়ীচালক তৈরির জন্য একটি প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে। এ সকল গাড়ীচালকের দেশে ও বিদেশে কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরি হবে। এছাড়া, যুবদের আধুনিক উন্নত প্রশিক্ষণ এবং বিভিন্ন বিষয়ে ডিপ্লোমা ও পিএইচডি প্রদানের লক্ষ্যে শেখ হাসিনা জাতীয় যুব উন্নয়ন ইনস্টিটিউট স্থাপন করা হয়েছে।

Development by: webnewsdesign.com