সিভিল এভিয়েশন একাডেমির ১৮টি কোর্সের বর্ণাঢ্য সনদ বিতরণ অনুষ্ঠান

বৃহস্পতিবার, ২৩ নভেম্বর ২০২৩ | 39 বার

সিভিল এভিয়েশন একাডেমির ১৮টি কোর্সের বর্ণাঢ্য সনদ বিতরণ অনুষ্ঠান

আন্তর্জাতিক বেসামরিক বিমান চলাচল সংস্থার সহযোগিতায় এবং ফেডারেল এভিয়েশন এডমিনিস্ট্রেশন ও বোয়িং কোম্পানির আর্থিক পৃষ্ঠপোষকতায় সিভিল এভিয়েশন একাডেমির আয়োজনে ০৫-১১-২০২৩ থেকে ২৩-১১-২০২৩ পর্যন্ত তিন সপ্তাহব্যাপী ICAO Government Safety Inspector- Airworthiness (GSI-AIR) Course কোর্স অনুষ্ঠিত হয়। এছাড়া ICAO এর সহযোগিতায় Behavior Detection শীর্ষক ০৫ দিনব্যাপী Aviation Security Course অনুষ্ঠিত হয়। সিভিল এভিয়েশন এর Capacity build up এর জন্য আন্তর্জাতিক কোর্সগুলো অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।

এছাড়া বাংলাদেশ সিভিল এভিয়েশনে নব যোগদানকারী ২৫৬ জন প্রশিক্ষণার্থীদের ১২ টি বিষয়ভিত্তিক ট্রেড কোর্সসহ মোট ১৮টি কোর্সের আওতায় ২৮৭ জন প্রশিক্ষণার্থীদের প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়। তাদের সনদপত্র আজকে এই অনুষ্ঠানের মাধ্যমে বিতরণ করা হয়। আগামী দিনগুলোতে বাংলাদেশের বিমানবন্দরগুলোর সার্বিক নিরাপত্তা ও সক্ষমতা বৃদ্ধিতে প্রথিক্ষণ প্রাপ্ত কর্মকর্তা/কর্মচারী সম্যক ভূমিকা পালন করবে।

সনদপত্র বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল এম মফিদুর রহমান। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বোয়িং কোম্পানির প্রতিনিধি রিতিশ পিল্লাই। তাছাড়াও বাংলাদেশ বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের বিভিন্ন দপ্তরের সদস্য, পরিচালক, সহকারী পরিচালক, কোর্সের প্রশিক্ষক, প্রশিক্ষণার্থী এবং বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।উক্ত অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন সিভিল এভিয়েশন একাডেমির পরিচালক জনাব প্রশান্ত কুমার চক্রবর্তী ।

প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে সিভিল এভিয়েশন একাডেমির সার্বিক কার্যক্রমের ভূয়সী প্রশংসা করেন এবং ‍যুগোপযোগী আধুনিক প্রশিক্ষণ প্রদান নিশ্চিত করার মাধ্যমে সিভিল এভিয়েশন খাতকে এক অনন্য উচ্চতায় নিয়ে যাওয়ার দৃঢ় প্রত্যয় প্রকাশ করেন। তিনি বাংলাদেশের সিভিল এভিয়েশন খাতকে প্রধানমন্ত্রীর স্বপ্নের সিভিল এভিয়েশন হাব-এ পরিণত করার লক্ষ্যে সিভিল এভিয়েশন একাডেমিকে কার্যকরী ভূমিকা পালনের সার্বিক নির্দেশনা প্রধান করেন।

অনুষ্ঠানের সভাপতি: এয়ার কমডোর সাদিকুর রহমান চৌধুরী, সদস্য (পরিচালনা ও পরিকল্পনা) এর সমাপনী বক্তব্যে সিভিল এভিয়েশন একাডেমিতে আইকো গোল্ড সদস্য সনদপত্র সংগ্রহের প্রত্যয়; তার বক্তব্য্য শেষ করেন। এতে বিগত ছয় মাসের ১৮ টি কোর্সের আওতায় প্রশিক্ষণ গ্রহণকারী ২৮৭ জন প্রশিক্ষণর্থীদের মধ্যে সনদ বিতরণ করা হয়। আগামী দিনগুলোতে বাংলাদেশের বিমানবন্দরগুলোর সার্বিক নিরাপত্তা ও সক্ষমতা বৃদ্ধিতে প্রথিক্ষণ প্রাপ্ত কর্মকর্তা/কর্মচারী সম্যক ভূমিকা পালন করবে।

উক্ত কোর্স পরিচালনার নিমিত্ত ৪,৯২,৯৫০/-(চার লক্ষ বিরানব্বই হাজার নয় শত পঞ্চাশ) টাকার প্রশাসনিক অনুমোদন ও আর্থিক ব্যয় মঞ্জুরী কর্তৃপক্ষ কর্তৃক অনুমোদিত হয়েছে (কপি সংযুক্ত) যা স্থানীয় প্রশিক্ষণ খাত (কোড নং-৩২৩১৩০২) হতে ব্যয় যোগ্য হবে।

অতএব, উক্ত কোর্সের অনুকূলে কর্তৃপক্ষ কর্তৃক অনুমোদিত ৪,৯২,৯৫০/-(চার লক্ষ বিরানব্বই হাজার নয় শত পঞ্চাশ) টাকা জনাব মোঃ মজিবুর রহমান মিয়াজী, সহকারী পরিচালক (মিটিওরলজি) এর অনুকূলে অগ্রিম প্রদান করা যেতে পারে। অগ্রিম গ্রহনকৃত টাকার প্রকৃত খরচ বিল ভাউচারের মাধ্যমে পরবর্তীতে সমন্বয় করা হবে।  নামের একটি Aviation Security Course অনুষ্ঠিত হয়। সিভিল এভিয়েশন এর Capacity build up zone- এ Instructor’s capacity build up zone এর জন্য ICAO Trainer plus এর সহযোগিতায় ICAO-TIC Course, Part-2 অনুষ্ঠিত হয়। সিভিল এভিয়েশন এর Capacity build up এর জন্য এই তিনটি আন্তর্জাতিক কোর্স খবই গরত্বপর্ণ ভমিকা পালন করবে।

সিভিল এভিয়েশন একাডেমি ১৯৭৫ সাল থেকে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের অধীনে কর্মরত কর্মকর্তা, কর্মচারী ও বিভিন্ন সংস্থার কর্মীদের জন্য বিভিন্ন প্রশিক্ষণ কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। তারই ধারাবাহিকতায় বিগত ৮ মাসে অনুষ্ঠিত বিভিন্ন জাতীয় ও আন্তর্জাতিক কোর্সে অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে সনদ বিতরনের উদ্দেশ্যে সিভিল এভিয়েশন একাডেমি বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের সদর দপ্তর অডিটরিয়ামে -২৩ নভেম্বর বিকাল ১৫.০০ ঘটিকায় এক বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানের আয়োজন করে । সিভিল এভিয়েশন একাডেমি বাংলাদেশ ট্রেনিয়ার প্লাস এর একটি সহযোগী প্রতিষ্ঠান যা আন্তর্জাতিক সিভিল এভিয়েশন (ICAO) এর নির্দেশনা অনুসরণ করে প্রশিক্ষণ কার্যক্রম পরিচালনা করে থাকে। প্রতিষ্ঠানটি বিগত ০৮ মাসে ০৩ (তিন)টি আন্তর্জাতিক ও ০৫ (পাঁচ) টি স্থানীয় কোর্স কার্যক্রম পরিচালনা করে যেখানে স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক প্রশিক্ষণার্থী প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেছেন।

Development by: webnewsdesign.com